সংবাদ শিরোনাম

আরও সংবাদ

8 Comments

  1. 1

    John Derek

    দেশের সকল অনাচার, অত্যাচার, অবিচার, ব্যভিচার, খুন, ধর্ষণ, লুটপাট এবং কল্পনিয়-অকল্পনিয় সকল অপকর্মের একটিই মাত্র কারণ – আর তা হলো এক জানোয়ার মহিলার অবৈধ ক্ষমতা দখল !! এ অবৈধ পশুকে সমূলে ধ্বংস না করা পর্যন্ত এই দেশের মুক্তি নাই। অতএব একটিই মাত্র লক্ষ্য হওয়া উচিত এখন দেশের মানুষের – এই পশু নিধন এবং দেশকে মুক্ত-করণ।

    আওয়ামী লীগ মানেই নীতি-নৈতিকতা বিবর্জিত একটি পশুলীগ – দেখামাত্রই এদেরকে নিধন করাই এখন দেশের একমাত্র আইন হতে হবে – অন্যথায় দেশের মুক্তি সম্ভব নয়!!

    এই মুহুর্তের বাংলাদেশ – নুরু’তেই শুরু নুরু’তেই শেষ!! নুরুদের এই বাংলাদেশ – হবে এক নতুন দেশ, সুশাসনের সুগন্ধে গড়া, শান্তি আর আনন্দে ভরা – সুজলা-সুফলা বাংলাদেশ!! নুরুদের দেশ বাংলাদেশ!!!

    Reply
  2. 2

    Raj

    আমার মনে হয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিলে আন্দোলন আরো তীব্র থেকে তীব্রতর হওয়ার সম্ভাবনা আছে যার কারণে এখনো সবকিছু খুলে দেয়া হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে

    Reply
  3. 4

    abuhamjah

    ভালো লাগলো লেখাটা

    Reply
  4. 5

    Md

    উসামা মোহাম্মদকে নিয়ে চমৎকার বিশ্লেষণ করেছেন। লেখককে ধন্যবাদ জানাই।

    Reply
  5. 6

    Muslim

    দালালমুক্ত ইসলামী শিক্ষাংগন ইসলামেরই দাবী।

    আজাদি কা মাতলাব ক্যায়া?
    ইসলাম বিনা অওর ক্যায়া?

    Reply
  6. 7

    নাজিম ফিরোজ

    সুন্দর আলোচনা এসব আলোচনার মাঝে নতুন সূর্য দেখতে পাই।
    ইনশাআল্লাহ আমার প্রানের জন্মভূমিতে নতুন দিগন্তের সুচনা হবে।
    বর্তমান যে রাজনীতি আমাদের দেশে বাস করছে এখানে প্রতি হিংসা ছাড়া আর কিছুই নেই।
    যে সরকার ক্ষমতায় থেকে সে মনে করে বিরোধী দলের লোক গুলো মানুষ ও না।
    তাদের সাথে কুকুরের মতো আচরণ করে,
    কিন্তু আমাদের মুরুব্বিদের মুখে শুনেছি কুকুর যখন কিছু খায় তখন তাকে তাড়ানো তাকে মা-রা মানুষের শোভা পায় না এটাও নাকি কুকুরের কাজ।
    অথচ আমাদের দেশে সরকার দলিও লোকদের কাছে এ-ই মানবতা টুকুও নেই।
    সর্বশেষ আল্লাহ কাছে দোয়া করি হে আল্লাহ আমাদের দেশের মানুষদের পরস্পর পরস্পরের প্রতি ভালবাসা, শ্রদ্ধা,মায়া মমত, বাড়িয়ে দিন এবং আমাদেরকে ভালোকে ভালো, মন্দকে মন্দ বলার সৎ সাহস দিন।
    আমাদেরকে এমন একটা নেতা দিন যিনি আমাদের দেশ দেশের মানুষকে ভালবাসে দেশ পরিচালনা করবে যেখানে থাকবে না হানাহানি খুন ধর্ষণের মতো নিকৃষ্ট কাজ হে আল্লাহ আমাদেরকে এ-ই শাসন ব্যবস্থা থেকে মুক্তি দিন।

    Reply
  7. 8

    মুজিবনগর

    বাংলাদেশ ঐতিহাসিক ভাবে একটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্টদের দেশ। ভারতে মুসলমানদের নিরাপত্তা থাকলে কোনদিন পূর্ব বা পশ্চীম পাকিস্তানের জন্ম হতো না ১৯৪৭ সালে। ভারতকে বৃটিশ শাসনমুক্ত করতে মুসলমানদের অবদান সব চাইতে বেশী। এসব নিয়ে উঁচু মহলে কোন তর্ক নাই, তারা সবাই সত্যটা জানে। আর এজন্যই যত ভয় তাদের।

    মুসলমান কিসের বলে বলিয়ান?, আল্লাহ্ তে ঈমান আনার বলে বলিয়ান সে। আর এজন্যই সে সর্বদা তার নিজেকে কোরবানী করতে প্রস্তুত আল্লার পথে, ঈমানের প্রয়োজনে, দেশের জন্য, জাতীর প্রয়োজনে, ধর্মের পথে।

    একটি মুসলমান রাষ্ট্রেই শুধুমাত্র একজন অমুসলমান নিরাপদ, এটা আমাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে সর্বপ্রথমে। ইহুদি আর খ্রিষ্টানরা সবসময় আমাদের বিরুদ্ধে কাজ করে এসেছে, ঐতিহাসিক ভাবে ওরা আমাদের বন্ধু হতে পারে না। ইসরাইলী গোয়েন্দারা ভারতে অত্যান্ত ততপর। সেখানকার হিন্দুদেরকে তাদের দোষর বানিয়ে ফেলেছে, ক্ষেপিয়ে তুলেছে হিন্দুদের আমাদের বিরুদ্ধে।

    ভারতে হিন্দুবাদীরা এখন বারুদের মত মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। ওরা ভিতু প্রকৃতির এবং আপাততঃ ওদের সংগবদ্ধ হতে দেখছি। কিন্তু ওরা ওদের নিজেদেরই শত্রু। একবার মুসলমানদের মধ্যে জাগরন দেখলে ওরা পালাবে সুরসুর করে। তাই আমাদেরকে দেখতে হবে এই ইস্কন, এরা কারা। ভারতীয় গোয়েন্দাবাহিনী ‘র’ সদস্যদের চিহ্নিত করুন, রামকৃষ্ন্ন মিশন নামের সংস্থাটিকে বিদায় করতে হবে, আর ভারতীয় হাইকমিশনের সবগুলো কনসুলেট অফিস বন্ধ করে দিতে হবে। ভারতীয় ভিসা অফিস শুধু ঢাকাতেই থাকলে চলবে। আর ভারতীয় হাইকমিশনকে পরিপূর্ন দেখাশুনার মধ্যে রাখুন। বাকী ভারতীয়রা, যারা এদেশে অবৈধ ভাবে কাজ করছে, তারা এমনিতেই পালিয়ে কুল পাবে না।

    Reply

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

© স্বত্ব আমার দেশ ২০০৮ – ২০২০