সংবাদ শিরোনাম

আরও সংবাদ

15 Comments

  1. 1

    Readone

    যারা এসব জঘন্য কাজ করেছে এদের বিচার আল্লাহ্ করবেনই ইনশাআল্লাহ্

    Reply
    1. 1.1

      shahin

      Today or tomorrow every victimist family will get justice

      Reply
  2. 2

    Mahamudul

    ইয়া আল্লাহ আমা‌দের ক্ষমা করুন , অত‌্যাচ‌রি‌কে তার প্রাপ‌্য দি‌য়ে‌দেন ।

    Reply
    1. 2.1

      আহসান

      প্রিয় মাতৃভূমিতে মানবাধিকার আজ ভূলুণ্ঠিত। জাতি এর থেকে মুক্তি চায়। হে আল্লাহ, এই জালিমদের পতন তরান্বিত কর!

      Reply
    2. 2.2

      আহসান

      আমীন!

      Reply
  3. 3

    সুজন

    আলল্লাহ তুমি এই জালিমদের ক্ষমতা শেষ করে দাও

    Reply
  4. 4

    শাহনেওয়াজ

    ইনশাআল্লাহ এদেশের মাটিতে অবশ্যই প্রত্যেকটি গুমের বিচার হবে। আল্লাহ তাআলা আপনাদের নিরাপদ ও শান্তিতে রাখুন।

    Reply
  5. 5

    আলী

    জালিমের পতন তরান্বিত হোক!

    Reply
  6. 6

    Shakib

    আলহামদুলিল্লাহ প্রতিদিন পরতে চাই, প্রিয় আমার দেশ

    Reply
    1. 6.1

      Wahab

      ঠিক

      Reply
  7. 7

    Muhammad Ibrahim Chowdhury

    ২০১২ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্র আল-মোকাদ্দেস ও ওয়ালিউল্লাহ নিখোঁজ হন। ওইদিন ঢাকায় ব্যক্তিগত কাজ শেষে হানিফ এন্টারপ্রাইজের গাড়িতে করে ক্যাম্পাসে ফিরছিলেন তারা। পথিমধ্যে রাত সাড়ে ১২টা থেকে ১টার মাঝামাঝি সময়ে সাভারের নবীনগর পেঁৗছলে র্যাব ৪-এর সদস্য পরিচয় দিয়ে গাড়িটি থামিয়ে র্যাব পরিচয়ে তুলে নেওয়া হয়

    Reply
  8. 8

    Nashir Ahmed Shahin

    যারা এসব জঘন্য কাজ করেছে এদের বিচার আল্লাহ্ করবেনই ইনশাআল্লাহ্

    Reply
  9. 9

    কাজী সারোয়ার মাহমুদ

    যে নারীর স্বামী গুম হয়েছেন তিনি জানেন না তিনি সধবা আছেন, নাকি বিধবা হয়েছেন। যে শিশুর পিতা গুম হয়েছেন সে শিশু জানে না তার ভাগ্যে এতিম শব্দটা জুড়ে গেছে কি না। বোন জানেনা, গুমের শিকার ভাইটি আর ফিরবেন কি না। মানবাধিকার লঙ্ঘন আর অপরাধের অনেক ধরন ও মাত্রা রয়েছে। তবে গুমের মতো হীন ও ন্যক্কারজনক বোধহয় আর একটিও নেই।

    গুমের শিকার ব্যক্তির স্বজনরা অপেক্ষায় দিন গোনেন, মাস হয়, ঘোরে বছর। প্রিয়জন ফেরে না, জীবিত আছেন নাকি মৃত, জানেন না তাও। মরে গেলে লাশ দেখার সুযোগটাও জোটে না।

    প্রতি বছর আন্তর্জাতিক গুম প্রতিরোধ দিবস আসে আর যায়- কিন্তু ওদের পথ চেয়ে থাকে পরিবার! তাদের এই অপেক্ষার পালা আর শেষ হয় না। ২০২০ সালের আন্তর্জাতিক গুম প্রতিরোধ দিবসে এই ন্যাক্কারজনক অপরাধের তীব্র প্রতিবাদ জানাই এবং দাবী জানাচ্ছি, “গুম বন্ধ হোক!”

    Reply
  10. 10

    কাজী সারোয়ার মাহমুদ

    ধন্যবাদ অলিউল্লাহ নোমান ভাই আজকের দিনের প্রতিপাদ্য নিয়ে এক্সক্লুসিভ এই লেখটির জন্য। এই হৃদয় বিদারক ঘটনাগুলো পড়ে নিজেকে স্থির রাখতে পারছি না। ভুক্তভোগী পরিবার গুলোর জন্য আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করছ।

    Reply
  11. 11

    Wahab

    ঠিক

    Reply

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

© স্বত্ব আমার দেশ ২০০৮ – ২০২০