সংবাদ শিরোনাম

আরও সংবাদ

8 Comments

  1. 1

    Mohammad

    ধন্যবাদ আমারদেশ ইউকে ,রেব এর বিষয়টি সামনে আনার জন্য। আইন শৃঙ্খলার উন্নতির জন্য এই চৌকষ বাহিনীর জন্ম হয় বিএনপির ক্ষমতা কালীন সময়ে। তখন তাদের ভূমিকা জনমনে নন্দিত ও প্রশংসিত হয়েছিল।কিন্তু বর্তমানে রেব এর ভূমিকায় তাদের সোনালী সাফল্য ঢাকা পরে গেছে।হিটলার, মুসোলিনি,ইসরাইল, রাশিয়া , আমেরিকার গুপ্ত বাহিনীনির মোট তারা আজ বাংলাদেশে এক আতংক ও দৈত্যের নাম। চাকরিতে দায়িত্ব পালন, সরকারি পদক, পদোন্নতির লোভে স্বৈরাচারী সরকারের দাসত্ব করে থাকেন।রেব এর সদস্যদের অনুরুধ করবো, রাস্টার আইনমানার শপথ আপনারা নিয়েছেন।রাষ্টের সর্বোচ আইন আমাদের সংবিধান।আপনারা সংবিধানে নাগরিকের প্রদত্ব অধিকার পদদলিত করে দলকানা হয়ে গুম খুনের নেশায় মত্ত হয়েছেন কেউকেউ। আপনার চাকরি এবং যে স্বৈরাচারের হাতিয়ার হিসেবে আপনারা কাজ করছেন, তাদের সবার অবসান হবে সময় ও মৃত্যুর কাছে।আমি অনুরুধ করবো আমাদের পুলিশ, বিজিবি,রেব ও সেনাবাহিনীর সদস্যদের ,আপনারা জানেন আজ যে গুম ও খুনের আপনি নেতৃত্ব দিচ্ছেন, আল্লাহর সামনে আপনার জবাবদিহি করতে হবে। সংবিধান আপনাকে যেমন সরকারের অনুগত থাকতে বলেছে, সেই সংবিধান দেশের নাগরিকদের জীবনের সুরক্ষা দিয়েছে। অনৈতিক কাজ করার চেয়ে অভুক্ত থাকা অনেক সন্মান ও নিরাপদ।ওসি প্রদীপ সরকারের পদক পেলেন।সে পদক তাকে পৃথিবীতে সাময়িক আনন্দ দিলেও পরাজয়, গ্লানি ও মৃত্যু এখন তাকে তারা করছে। সরকারের কর্মচারী, রাজনৈতিক দলের কেডার যারা আজ ক্ষমতার ঘোরে আছেন, একবার ভেবে দেখুন।সময় ও মৃত্যুর কাছে আমাদের সমর্পন করতে হবেই।আমাদের দম্ভ নিস্তেজ ও অকার্যকর ই নয় আপনাকে দারুন অসহায়ত্ব নিকট সমর্পন করবে।স্রষ্টাকে ভয় করুন।আর যদি সেটা নাও করতে চান ,তাহলে নৈতিকতা ও মূল্যবোধের জন্য সংবিধান পরিপন্থী কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখুন।অন্যায় কাজে সহযোগিতা থেকে বিরত থাকুন। সত্যের বেপারে নির্ভিক থাকুন।মত পার্থক্যের জন্য কাউকে হত্যা করা যায়না।আপনারা চিরকাল এই সব বাহিনীর সদস্য থাকবেননা। এই সমাজে আপনাদের বাঁচতে হবে। সন্মান নিয়ে মাথা উঁচু করে বেঁচে সবচেয়ে বড় সাফল্য।বিচারের জন্য মৃত্যু পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবেনা।বিচার তার আগেও শুরু হতে পারে।বিচার পতি সিনহা,খাইরুল হোক, ওসি প্রদীপের জীবন থেকে শিক্ষা নিন। বাংলাদেশে ত্ত্রিশ লক্ষ লোকের হত্যার ষড়যন্ত্রে ভুট্টোকে ফাঁসির কাষ্ঠে ঝুলতে হয়েছে। দম্ভ ও লোভ ত্যাগ করে দুনিয়া ও আখেরাতে সম্মানের জীবন বেঁচে নিন। বাংলাদেশের পরমায়েসি বিচারপতি , উর্ধতন সকল মহলকে অনুরুধ করবে সংবিধান, জনগণ ও আল্লাহর ওয়াস্তে সকল অন্যায় কাজ করা ও সহযোগিতা থেকে বিরত থাকুন। আইনকে স্বাভাবিক গতিতে চলতে দিন। গুম ও হত্যা সব সমস্যার সমাধান নয়।

    Reply
  2. 2

    আহসান

    খুনিদের বিচারের আওতায় আনতেই হবে।

    Reply
  3. 3

    Sadi

    Thanks for such an informative report. We were silent when this facist government started abducting people, extra-judicial killings, and so on. We neglected becacuse we said these oppressed were from opposition parties. Now, when these opressions are taking place to the people regardless of political identity, we start to concern. It’s too late. We owe much more pain, because we supported injustice in the first place.

    Reply
  4. 4

    মুজিবনগর

    রাওয়া ROWA ক্লাবটা একটা মদখোর আর ঐ একশ্রেনীর ব্যাবসায়ী দের আড্ডা, প্রকৃত ভদ্র আর প্রফেসনালরা ওখানে যায় না। তাদের moral কখনই high ground এ ছিল না।

    বিভিন্ন সরকারী প্রযেক্ট থেকে চুরিদারি এখন নিয়মিত তারাও করে দেশের বাদবাকী অন্য শয়তানদের মতই।মেসিন টুলস্ ফ্যাকটরিতে একজন মেঃ জেঃ আছে, কাজ শুধু বাণিজ্য করা। সেনাবাহিনী এখন ১৩৪টা এনটারপ্রাইজিং কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। বিমানের বারোটা বাজিয়েছে এরাই। সিভিল এভিয়েসন আজও চুষে খাচ্ছে এরা।

    এরা হারামীপনা করে ল্যান্ড ডেভেলপমেন্টের সাধে জড়িত, মিরপুর DOHS এ সাধারন কৃষকের জমি জোড় অধিগ্রহন করেছে এরা।

    Trigger happy শালারা আজ বড় বড় কথা বলে, extortion করে মাল কামাচ্ছে, কিভাবে seven murder হলো। RAB এর আলমারীতে মানুষ মারার বিষাক্ত ইনজেকসন এলো কিভাবে? লেঃ কঃ গুলজার কথায় কথায় মানুষ মারতো, আমি সাক্ষী একটা ঘুন সে করেছে আমার সামনে, কেউ তাকে থামাতে পারতো না, হাসীনার মত লাসের নেশা তার হয়ে পড়েছিল।

    আজিজের মত একটা গুন্ডা যদি বাহিনী প্রধান হয়, তা এ সেনাবাহিনী থাকার চাইতে না থাকা ভালো। বুকের পাটা থাকলে আমাকে ফোন করেন, দেখি একটু বুকের পাটা +61401292060

    Reply
  5. 5

    মুজিবনগর

    একজন নিরাপরাধ জামাত নেতাকে হত্যা করতে সেনাবাহিনীর ১৪ জন খুনীকে, এদের নাম খুঁজে বের করে রাখুন, সঠিক সময়ে এদের বিচার হবে অবস্যই, সেদিন বেশি দূরে নয়। আমীন!

    Reply
  6. 6

    Labib

    কিছু করতে না পারি বিষয়গুলো জেনে তো রাখি।

    Reply
  7. 7

    বুঙ্গাবুঙ্গা কলকি মুজিব

    তুম জামিন পে জুলম লিখ দো
    আসমান পে ইনকিলাব লিক্ষা যায়েগা।

    সাব ইয়াদ রাখা যায়েগা।
    সাব কুচ ইয়াদ রাক্ষা যায়েগা।

    Reply
  8. 8

    নাজিম ফিরোজ

    ২০০৭ থেকে পত্রিকাটি পড়িনি এমন দিন আমার খুব বেশি মনে পড়ে না।
    কখনো কোন ব্যস্ততার কারণে হয়তো মিস করেছি তবে যে দিন মাহমুদুর রহমানের কল আসতো সে দিন হাজারো ব্যস্ততার মাঝেও রাত জেগে হলেও পড়ে শেষ করতাম তবে ২০১৩ সাল থেকে কায় একদিন নয়া দিগন্ত পড়া হয়েছে তারপর আজ পর্যন্ত একটা পত্রিকা নেয়া হয়নি।
    আল্লাহর কাছে দোয়া করি আল্লাহ যেন মাহমুদুর রহমান স্যারকে সুস্থতা সহ নেক হায়াত দরাজ করুন।
    এবং সত্য নেয়াইয়ের কথা বলার জন্য আবার আমার দেশ পত্রিকাটিকে প্রকাশিত করার তৌফিক দিন।

    Reply

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

© স্বত্ব আমার দেশ ২০০৮ – ২০২০